চাঁদপুরে জাটকা শিকারে আটক ২৬ জেলে

নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনা নদীর অভয়াশ্রম এলাকায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জাটকা শিকার করার অপরাধে ২৬ জেলেকে আটক করেছে জেলা টাস্কফোর্স।

আটক জেলেদের মধ্যে ১৬জনকে এক মাস করে কারাদণ্ড, ৮জনকে ৩২ হাজার টাকা জরিমানা এবং দুইজন অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় অভিভাবকের জিন্মায় ছেড়ে দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।

২৮ মার্চ মঙ্গলবার রাতে কোস্টগার্ড চাঁদপুর স্টেশনে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকারিয়া হোসেন।

কারাদন্ড প্রাপ্ত জেলেরা হলেন-আহম্মদ আলী হাওলাদার (৪২), সোহরাব বেপারী (৪২), করিম হাওলাদার (৪০), মোঃ জসিম (১৮), রাজিব মোল্লা (২০), দেলোয়ার বেপারী (৪২), ফয়সাল দেওয়ান (৩৫) মোঃ ফারুক উকিল (৩৫), মেছবাহ উদ্দিন (৪০), মোহন মিজি (৪০), বোরহান (৩৫), আল-আমিন (২০), হাকিম সরদার (২২), সেলিম বেপারী (১৯), সাইম সরদার (১৮) ও মো. সুজন (১৮)।

জরিমানা করা হয় ৮ জন জেলেকে। এর মধ্যে মো. সাইফুলকে (১৭) ৩ হাজার, সুমনকে (১৭) ২ হাজার, মাহবুবকে (১৭) হাজার, আখতারকে (২৪) ৫ হাজার, মুলুক চান বেপারীকে (২০) ৫ হাজার, দেলোয়ার কে (৫২) ৫ হাজার, মো. সুমনকে (৩০) ৫ হাজার এবং মো. মনিরকে (৩২) ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় মুচলেকা রেখে অভিভাবকের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়- আল-আমিন (১৬) ও মো. শামীম (১৬) নামে জেলেকে। আটক জেলেদের বাড়ী শরীয়তপুর ও মুন্সীগঞ্জ জেলার বিভিন্ন এলাকায়।

রাত সাড়ে ১০টায় এসব তথ্য নিশ্চিত করেন চাঁদপুর সদর উপজেলা সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান।

তিনি জানান, জাটকা রক্ষায় চাঁদপুর পদ্মা-মেঘনায় বেলা ২টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ২৬জন জেলে আটক এবং ১লাখ মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়। জব্দকৃত কারেন্টজাল আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকারিয়া হোসেন এর নেতৃত্বে অভিযানে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা মো. তানজিমুল ইসলাম, ক্ষেত্র সহকারী মো. জামিউল হোসেন, কোস্টগার্ড ও নৌ পুলিশের সদস্যরা।

ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষে ১ মার্চ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত দুই মাস জাটকা রক্ষায় পদ্মা-মেঘনার অভয়াশ্রম এলাকায় ইলিশসহ সব ধরণের মাছ আহরণ, ক্রয়-বিক্রয়, মওজুদ ও পরিবহন নিষিদ্ধ করেছে সরকার। আইন অমান্যকারীর বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ দুই বছরের কারাদন্ড বা ৫ হাজার টাকা জরিমানা বা উভয় দন্ডের বিধান রয়েছে।

Loading

শেয়ার করুন
Verified by MonsterInsights